১৪ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণ করলো ৪০ জন!

সুরমা টাইমস ডেস্ক: থাইল্যান্ডে গত বছর ১৪ বছরের এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এক বা দুজন নয়, ৪০ জন ধর্ষণ করেছে বলে কিশোরী অভিযোগ করেছে। দেশটির পুলিশ বর্তমানে কিশোরীর অভিযোগ তদন্ত করে দেখছে। কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সিএনএন বৃহস্পতিবার এ খবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, ধর্ষণের শিকার কিশোরী থাইল্যান্ডের ফাং না প্রদেশের ছোট্ট দ্বীপের কোহ রিডের বাসিন্দা। প্রদেশের ডেপুটি গভর্নর এগারাত লেসেন বলেন, এ বছরের মার্চে কিশোরী প্রথম যৌন নিপীড়নের অভিযোগের কথা জানায়।

ওই কিশোরী পুলিশকে বলেছে, গত বছরের মে থেকে ডিসেম্বরের মধ্যে কয়েকবার সে ধর্ষণের শিকার হয়। ফাং না প্রদেশের সরকারি কৌঁসুলি জানিয়েছে, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তবে ওই তিনজন এখন জামিনে আছে।

ডেপুটি গভর্নর এগারাত লেসেন বলেন, কিশোরী পুলিশের কাছে দাবি করেছে যে ধারাবাহিকভাবে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। ৪০ জন পুরুষ এটি করেছে। তবে এই ৪০ জনের সবাই ছোট্ট দ্বীপের কোহ রিডের বাসিন্দা না বলে মনে করেন তিনি। যে কারণ দোষীদের খুঁজে বের করে তদন্ত করাটা বেশ কঠিন।

পুলিশ কর্মকর্তা বোনথায়ি তোরাকসা বলেন, ঘটনাটি তদন্ত করছে ফাং নায়ের প্রাদেশিক পুলিশ। বিষয়টি স্পর্শকাতর হওয়ায় তিনি এ ব্যাপারে আর কোনো মন্তব্য করতে চাননি। তবে ধর্ষকের সংখ্যা ৪০ হবে না বলে মনে করেন তিনি।

থাইল্যান্ডের দ্য নেশন পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে, মেয়েটির বাবা-মা প্রায়ই রাতের পালায় কাজ করতেন। মেয়েটি তখন বাড়িতে একা থাকত। এ সময় ধর্ষণের ঘটনাগুলো ঘটেছে।

পুলিশ কর্মকর্তা তোরাকসা বলেন, নিরাপত্তার স্বার্থে কিশোরীর পরিবারকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত প্রত্যেককে বিচারের মুখোমুখি করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open