পিয়াইন নদীতে ডুবে দুই পর্যটকের সলিল সমাধি

নিজস্ব প্রতিনিধি : সিলেটের জাফলংয়ের পিয়াইন নদীর জিরো পয়েন্ট এলাকায় গোসল করতে নেমে স্রোতের টানে তলিয়ে দুই কলেজ ছাত্রের সলিল সমাধি হয়েছে।

এর মধ্যে কামাল শেখ নামের এক জনের লাশ উদ্ধার করা হলেও সৌরভ নামের অপর আরেকজন নিখোঁজ রয়েছে। কামাল শেখ ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা পৌরসভার বাসিন্দা রশিদ শেখ’র পুত্র ও ময়মনসিংহ এ্যাপোলো ইনিস্টিটিউটের একাদ্বশ শ্রেণীর প্রথম বর্ষের ছাত্র। কামাল শেখ ডুবে যাওয়ার ৩ ঘন্টার ব্যবধানে ফয়সল হোসেন সৌরভ নামের অপর আরেক কলেজ ছাত্র পানিতে ডুবে নিখোঁজ রয়েছে।

সৌরভ চট্টগ্রামের ভাঙ্গা রেলওয়ে কলোনীর আম বাগান এলাকার বাসিন্দা সিরাজুল মওলার পুত্র ও চট্টগ্রাম সরকারী সিটি কলেজের একাদ্বশ শ্রেণীর দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানাযায় কামাল শেখ ও তার ১৫ জন বন্ধু মিলে মঙ্গলবার সকালে ময়মনসিংহ থেকে মাইক্রোবাস যোগে পর্যটন কেন্দ্র জাফলংয়ে বেড়াতে আসে। দুপুর ১২টায় তারা পিয়াইন নদীর জিরো পয়েন্ট এলাকায় গোসল করতে নামে। এসময় সাঁতার না জানায় স্রোতের টানে কামাল শেখ তলিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন ও দমকল বাহিনীর সদস্যরা চেষ্টা চালিয়ে প্রায় ৩ ঘন্টা পর তার লাশ উদ্ধার করে। নিহত কামাল শেখ’র সাথে আসা সহপাঠি সজল ও হৃদয় তার নাম পরিচয় নিশ্চিত করেন।

এর ঠিক কিছু সময়ের মধ্যেই চট্টগ্রাম থেকে জাফলং ভ্রমণে আসা সৌরভ ও তার চার বন্ধু মিলে পিয়াইন নদীতে গোসল করতে নামে। এসময় স্রোতের টানে সৌরভ পানিতে তলিয়ে যায়। এ প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত দমকল বাহিনী ও পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা নিখোঁজ সৌরভের লাশ উদ্ধার করতে পারেনি।
নিখোঁজ সৌরভের সাথে আসা অপর বন্ধু সজিব তার নাম ও পরিচয় নিশ্চিত করেন। জাফলং ট্যুরিষ্ট পুলিশের ইনচার্জ দেবাংশু কুমার দে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান স্থানীয় লোকজন ও দমকল বাহিনীর সহায়তায় এক জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ আরেক জনের লাশ উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

Sharing is caring!

Loading...
Open