সুনামগঞ্জে ছাত্রলীগ নেতা হত্যা মামলায় ওসি ও এক এসআইয়ের ১০ বছরের কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিনিধি::সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান শিপলু হত্যা মামলায় তাহিরপুর থানার তৎকালীন ওসি শরীফ উদ্দিন ও এসআই রফিকুল ইসলামকে ১০ বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেছে আদালত।

রায়ে তাহিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুলসহ অপর ৫ আসামীকে খালাস দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় এ রায় ঘোষণা করেন সুনামগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়েরা জজ প্রণয় কুমার দাস।

খালাসপ্রপ্তরা হলেন তাহিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল, উপজেলা বিএনপি নেতা জুনাব আলী, মেহদী হাসান উজ্জ্বল, শাহিন মিয়া ও শাহজাহান।

উল্লেখ্য, ২০০২ সালের ২০ মার্চ রাতে তাহিরপুর উপজেলা ভাটি তাহিরপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে তাহিরপুর জয়নাল আবেদীন মহাবিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান শিপলুকে গুলি করে হত্যা করা হয়। পরে শিপলুর মা আমিরুনেচ্ছা বাদী হয়ে আদালতে ৭ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ ১৫ বছর পর বিচারবিভাগীয় তদন্ত শেষে আদালত এ রায় ঘোষনা করেন।

বাদি পক্ষে মামলা পরিচালনা করে সিনিয়র আইনজীবী আফতাব উদ্দিন, পিপি ড. খায়রুল কবীর রুমেন।

পিপি ড. খায়রুল কবীর রুমেন জানান, আদালতে তারা ন্যায় বিচার পাননি। মূল আসামীরা খালাস পেয়ে গেছে। তারা রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

তবে আসামী পক্ষের আইনজীবী ও সুনামগঞ্জ জেলা বারের সাধারন সম্পাদক আব্দুল হক বলেন, আদালতে আমরা ন্যায় বিচার পেয়েছি। আদালতের রায়ে সন্তুষ্ট। এ মামলায় উদ্দেশ্য মূলকভাবে বিএনপি নেতাকর্মীদের আসামী করে বছরের পর বছর হয়রানি করা হয়েছে।

এদিকে রায়কে কেন্দ্র করে জেলা পুলিশ আদালত পাড়ায় কড়া নিরাপত্তা বলয় গড়ে তুলে।

Sharing is caring!

Loading...
Open