অবৈধ বিদ্যুৎলাইনে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে বিশ্বনাথে শিশুর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি:: সিলেটের বিশ্বনাথে এবার পোল্ট্রি-ফার্মে অবৈধভাবে নেওয়া লাইনে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে রেশমা বেগম নামের সাত বছর বয়সী এক শিশু প্রাণ হারিয়েছে। রেশমা বেগম উপজেলা সদরের পার্শ্ববর্তী জানাইয়া নোয়াগাঁও গ্রামের রানু মিয়ার মেয়ে।

শুক্রবার (১৮আগস্ট) সকালে ওই গ্রামের আব্দুল মানিকের পোল্ট্রি-ফার্মে অবৈধভাবে নেওয়া লাইনে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রেশমার মামা দিলোয়ার হোসেন। তার অভিযোগ, পোল্ট্রি-ফার্মের চারপাশে অবৈধ বিদ্যুৎলাইন রাখায় তার ভাগনির মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। পোল্ট্রি-ফার্মের মালিক আব্দুল মানিকও ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন ফার্মে শেয়ালের জন্যে দেয়া বিদ্যুৎ লাইনে লেগে যাওয়ায় মেয়েটির মৃত্যু হয়েছে।

জানাগেছে, শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে দোকানে যাবার পথে পোল্ট্রি-ফার্মের কাছে গেলে কয়েকটি কুকুর শিশুটিকে ধাওয়া করে। কুকুরের আক্রমণ থেকে বাঁচতে শিশুটি দৌড়ে ওই ফার্মে আশ্রয় নিতে যায়। কিন্তু ফার্মে শেয়াল-কুকুরে জন্য অবৈধ বিদ্যুৎলাইন দিয়ে পাতানো ওই ফাঁদে বিদ্যুৎস্পর্শে শিশুটিরই মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে থানা পুলিশের এসআই রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছেন বলে থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার একই উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের পশ্চিম নোয়াগাঁও গ্রামের সৌদী প্রবাসী চান মিয়ার ছেলে মাদ্রাসাছাত্র রুহুল আমীন (১৬) বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যান।

Sharing is caring!

Loading...
Open