মিছিলে মিছিলে শাহজালাল (রহ.)র মাজারে গিলাফ চড়াতে আসছেন ভক্ত আশেকানরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজারে ৬৯৮তম বার্ষিক ওরশ আজ শনিবার থেকে শুরু হয়েছে। আজ সকাল নয়টা থেকে শুরু হয়েছে মাজারে গিলাফ চড়ানো। চলবে বিকাল পর্যন্ত। রবিবার ভোররাত ৩টা ১৫ মিনিটে আখেরী মোনাজাতের পর শিরনী বিতরনের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পন্ন হবে ওরশ।

ওরশ উপলক্ষে মাজার প্রাঙ্গনে ঢল নেমেছে শাহজালালের ভক্ত-আশেকানদের। সকাল থেকে বৃষ্টির মধ্যে মিছিলে মিছিলে শাহজালালের মাজারে গিলাফ চড়াতে আসছেন ভক্ত আশেকানরা।

সিলেটের বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ মাজারে গিলাফ চড়াতে আসছেন। ওরশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে থেকে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ মাজারে গিলাফ দিয়েছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সদস্য ও সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিনসহ জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।

এদিকে ওরশ উপলক্ষে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ পুরো মাজার এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করেছে। যে কোন ধরনরে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে গুরুত্বপূর্ণ ১০টি পয়েন্টে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট। নিরাপত্তার স্বার্থে মাজারের ভেতরে ও বাইরে প্রায় অর্ধশতাধিক নতুন করে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা বসানো হয়েছে।

সিলেট মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা বলেন, কোনও ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যেন না ঘটে সেদিকে লক্ষ রেখে সিলেট মহানগর পুলিশ ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে। মাঠ পর্যায়ের পুলিশের পাশাপাশি মেট্রোপলিটন পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও তৎপর থাকছেন। এমনকি মাজারকেন্দ্রিক পুলিশি তৎপরতা নজরদারি করছেন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। দায়িত্ব পালনে কেউ গাফিলতি করলে তার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ওরশে আগতদের নিরাপত্তার জন্য ৫০টি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এছাড়া পবিত্র ওরশ চলাকালীন সময়ে আম্বরখানা থেকে চৌহাট্টা, দর্শন দেউরী হতে ঝর্ণারপাড়, রাজার গলি হতে মাজারের প্রধান গেইট, মিরের ময়দানস্থ হোটেল হেরিটেজ হতে ঝর্ণারপাড় রাস্তা এবং মাদ্রাসা সড়কস্থ পূবালী ব্যাংক গেইট হতে মিনার গেইট পর্যন্ত রাস্তায় যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এছাড়া মাজার ও তার আশপাশ এলাকায় কোন যানবাহন পার্কিং না করার জন্য এসএমপির পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ইসলাম প্রচারের জন্য হযরত শাহজালাল (রহ.) ১৩০৩ খ্রিস্টাব্দে ৩৬০ সফরসঙ্গী নিয়ে সিলেট আসেন। ১৩৪৬ খ্রিস্টাব্দের ১৯ জিলকদ তিনি ইন্তেকাল করেন। সিলেটে তিনি যে টিলায় বসবাস করতেন, সেখানেই তাকে দাফন করা হয়। তার কবরকে ঘিরেই পরে গড়ে উঠেছে মাজার।

Open