গোয়াইনঘাটে মাদক পাঁচারকারীদের আটক করতে গিয়ে ০৩ পুলিশ সদস্য লাঞ্চিত!

নিজস্ব প্রতিনিধি : সিলেটের গোয়াইনঘাটে নিষিদ্ধ ভারতীয় মদ পাঁচারকারীদের আটক করতে গিয়ে জনতার হাতে ০৩ পুলিশ সদস্য লাঞ্চিত হয়েছেন।এ ঘটনায় থানা পুলিশের ০৩ সাবইন্সপেক্টর গুরুতর আহত হয়ে উপজেলা সাস্থ্যকমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়,থানা পুলিশের সাবইন্সপেক্টর সমিরন চন্দ্র দাস গোপন সংবাদের ভিত্তিতে (২২জুলাই)শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় উপজেলার আলীরগাঁও ইউনিয়নের লাফনাউট বাজারে মাদক পাচারকারীদের আটক করতে থানার এসআই উসমান, এসআই আনোয়ার হোসেন সহ সঙ্গী ফোর্সদের নিয়ে অভিযান পরিচালনা করে ৩জনকে আটক করতে সক্ষম হয়। পাচারকারী সদস্যদের আটকের এক পর্যাায়ে আর্তচিৎকার দিলে বাজারে থাকা স্থানীয় এলাকাবাসী থানা পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে আটককৃত শরিফ উদ্দিন(২৫)পিতা-আব্দুল হাসিম,নুর ইসলাম(২৩)পিতা- আব্দুল খালিক,ফয়সল আহমদ(২৫)পিতা-আব্দুল বারী’কে পুলিশের হাত থেকে ছিনিয়ে নেয়। এবং থানা পুলিশের উপর আক্রমন চালিয়ে এসআই সমিরন চন্দ্র দাস, এসআই উসমান, এসআই আনোয়ার হোসেনকে গুরুতর আহত করে।

এঘটনার খবর পেয়ে গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ দেলওয়ার হোসেন, ওসি তদন্ত হিল্লোল রায় এবং থানার সেকেন্ড অফিসার বদিউজ্জামান আহত পুলিশ সদস্যদের উদ্বার করে গোয়াইনঘাট উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন। এঘটনায় থানা পুলিশ লাফনাউট গ্রামে অভিযান চালিয়ে তৈয়মুর রেজার পুত্র ফয়সল রেজা(৩৫),খলিলুর রহমানের পুত্র বশির উদ্দিন,সামছুল ইসলামের পুত্র আলমাছ মিয়াকে গ্রেফতার করেছে।

এব্যাপারে গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ দেলওয়ার হোসেন প্রতিবেদককে জানান,স্থানীয় লাফনাউট বাজারে জনতার রোষানলে পড়ে আহত এসআই সমিরন চন্দ্র দাস,এসআই উসমান,এসআই আনোয়ার হোসেনকে চিকিৎসা শেষে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে’র লক্ষ্যে লাফনাউট বাজারে অর্ধশত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এঘটনায় থানা পুলিশের উপর আক্রমনকারীদের উপর পুলিশ এসল্ট মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং অপরাপর আসামীদের আটক করতে থানা পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open