নৌপরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী ঘুষসহ হাতেনাতে আটক।

সুরমা টাইমস ডেস্ক::
ঘুষ নেওয়ার সময় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অধীন নৌপরিবহন অধিদপ্তরের এক প্রধান প্রকৌশলী ও শিপ সার্ভেয়ারকে হাতেনাতে আটক করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আটক হওয়া ওই প্রকৌশলীর নাম এ কে এম ফখরুল ইসলাম।

মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) দুপুর ২টার দিকে রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় নিজ কার্যালয় থেকে ফখরুলকে আটক করা হয় বলে দুদক জানিয়েছে।

দুদকের সহকারি পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম জানান, বেলা দুইটার দিকে বিআইডব্লিউটিআই অফিস থেকে পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণকালে তাকে আটক করা হয়।

ঘুষ গ্রহণের ঘটনায় নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে মতিঝিল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

দুদক কর্মকর্তা আরও জানান, বেঙ্গল মেরিন অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং সার্ভিসেস’র জাহাজের নকশা অনুমোদনের জন্য তিনি এই টাকা গ্রহণ করেছিলেন। ওই প্রতিষ্ঠানের অথরাইজড পার্সন এএনএম বদরুল আলমের কাছ থেকে ২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ২১টি জাহাজের নকশা অনুমোদনের জন্য প্রতিটি জাহাজের জন্য আকারভেদে ৫-১৬ লাখ টাকা দাবি করেছিলেন ফখরুল ইসলাম।

আজ (মঙ্গলবার) একটি জাহাজের নকশা অনুমোদনের জন্য তিনি ঘুষ গ্রহণ করেছিলেন।

দুদকের সহকারি পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম জানান, নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে অবৈধ পন্থায় অর্থ উপার্জনের বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে। একইসঙ্গে ইস্কাটনের শান্তা টাওয়ারের এ ও বি টেনের তিনকোটি টাকার ফ্ল্যাটে তার বিলাসবহুল জীবনযাপনেরও তথ্য রয়েছে দুদকের কাছে। এসব বিষয়ে তদন্ত চলবে বলে জানান তিনি।

গ্রেপ্তার অভিযানে নেতৃত্বে দেন দুদকের ঢাকা বিভাগীয় পরিচালক নাসিম আনোয়ার। অভিযানে অংশ নেওয়া অন্যদের মধ্যে ছিলেন দুদকের ঢাকা-১ এর উপ পরিচালক মো. ইব্রাহিম, সহকারী পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম, মো. আব্দুল ওয়াদুদ, মো. মনিরুল ইসলাম, নুর-ই আলমসহ মোট ৯ সদস্য।

Sharing is caring!

Loading...
Open