ইলিয়াস আলীকে ফিরিয়ে না দিলে ঈদের পর দুর্বার আন্দোলন-শামীম ।

নিজস্ব প্রতিনিধি:

সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম বলেছেন, নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীকে দীর্ঘ ৫বছরের বেশী সময় ধরে আ’লীগ সরকার গুম করে রেখেছে। আগামী ঈদুল ফিতরের আগে জনতার নেতা এম ইলিয়াস আলীকে জনতার কাছে ফিরিয়ে না দিলে ঈদের পর দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। আর সেটা হবে ইলিয়াসকে মুক্ত করার আন্দোলন। তাই সিলেটের সকল বিএনপিও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনে সাঁড়া দিতে হবে।

বৃহস্পতিবার (১৫জুন) বিকেলে বিশ্বনাথ উপজেলা বিএনপি আয়োজিত ইফতার পূর্ব আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি জালাল উদ্দিন চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে ও বিশ্বনাথ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক লিলু মিয়া চেয়ারম্যান, যুগ্ম-সম্পাদক হাজী আবদুল হাই’র যৌথ উপস্থাপনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, সিলেট জেলা বিএনপি নেতা ও বিশ্বনাথ উপজেলা চেয়ারম্যান সুহেল আহমদ চৌধুরী।

সভায় বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক মঈনুল হক, জেলা ছাত্রদলের ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক শাকিল মোর্শেদ, বিশ্বনাথের খাজাঞ্চি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তালুকদার গিয়াস উদ্দিন, উপজেলা বিএনপি নেতা আবুল হোসেন মেম্বার, হাফিজ আরব খান, আজাদ খান, মাহতাব উদ্দিন, সেচ্ছাসেবকদল নেতা সাজ্জাদ আলী শিপলু, উপজেলা ইলিয়াস মুক্তি যুব সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক আবদুল মুমিন মামুন মেম্বার, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক শামিমুর রহমান রাসেল, কদর আলী, কাওছার আহমদ তুলাই, নানু মিয়া, যুবদল নেতা আবু সুফিয়ান, আবদুর রব সরকার, সাইদুর রহমান রাজু, সিলেট জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-সম্পাদক আবদুল কাইয়ুম, উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক মতিউর রহমান সুমন, জেলা ছাত্রদল নেতা শামছুল ইসলাম, সদস্য আলাল আহমদ, আবদুর রহমান খালেদ, শেখ ফরিদ, কলেজ ছাত্রদল নেতা রাসেল আহমদ, আবদুর রব।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক মাহবুল রব চৌধুরী ফয়ছল, সহ-দপ্তর সম্পাদক মালেক আহমদ, সদস্য জসিম উদ্দিন জুনেদ, রাজনীতিবিদ আবদুল কাইয়ুম, নিজাম উদ্দিন সিদ্দিকী চেয়ারম্যান, খেলাফত মজলিস নেতা মাওলানা আবদুল ওদুদ, আবদুল মতিন, উপজেলা বিএনপি নেতা ডাক্তার সারোয়ার হোসেন চেরাগ, মনির হোসেন, আব্বাস আলী চেয়ারম্যান, আবরক আলী চেয়ারম্যান, ফারুক মিয়া, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধাদলের সদস্য সচিব কলমদর আলী,বিএনপি নেতা জামাল আহমদ, আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম, আকবর আলী, মতছির আলী, মাছুম আহমদ মারুফ, আবদুল জলিল, আবদুল জব্বার, সেবুল আহমদ, আশিক, জালাল আহমদ, শামিম আহমদ মেম্বার, যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক আবদুল লতিফ, যুবদল নেতা শাহজাাহান, জাহাঙ্গীর আলম, সালেহ আহমদ, আবদুল কাদির, ময়নুল আহমদ, নুরুল হক, সৌরভ আহমদ লাকি, বাবুল আহমদ, ওদুদ মেম্বার, আইন উদ্দিন, সোহাগ আহমদ, মাসুদ আহমদ সুমন,আবদুস সালাম, বাবুল,আবুল কালাম, সেচ্ছাসেবকদল নেতা শেক শাহজাহান, আবুল বাশার, আরিফ আলী, হিরণ মিয়া,আবদুল হক, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি হানুর ইসলাম ইমন, মহানগর ছাত্রদলের সহ-সাংগঠিনক উপজেলা ছাত্রদল নেতা তারেক আহমদ খজির, লিটন শিকদার, আবদুল বাছিত, ইমরান আহমদ সুমন, রুহেল আহমদ কালু, শিব্বির আহমদ, মোহাম্মদ আলী, ফাহিম আহমদ,দিলোয়ার হোসেন সজিব, সুজেল আহমদ, নজরুল ইসলাম দুলাল মেম্বার, জাকির মিয়া, ময়নুল ইসলাম, বদরুল ইসলাম, সাজ্জাদ আহমদ, ফারুক আহমদ, জিতু মিয়া,আবদুল মুমিন, সুমিন আহমদ, আতিক আলী, হোসেন আহমদ, বুলবুল ইসলাম, সমর আলী, কাওছার আহমদ, শামিম আহমদ, সোহাগ, ওসমানীনগর উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক কবির আহমদ, দিলোয়ার হোসেন, কলেজ ছাত্রদল নেতা একে রাজু, আখতার আহমদ প্রমূখ।

Sharing is caring!

Loading...
Open