বিয়ানীবাজারে শিশুধর্ষক লন্ডনির রিমান্ড মঞ্জুর

স্টাফ রিপোর্টার ::
বিয়ানীবাজারে ধর্ষণের শিকার ১২ বছরের শিশুকন্যাকে ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত যুক্তরাজ্য প্রবাসী সারোয়ার আহমেদ (৩৫)-কে এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল রোববার দুপুরে রিমান্ড শুনানি শেষে সিলেটের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (চতুর্থ) আদালতের বিচারক ফারজানা সাকিব সুমন আসামির এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামি লন্ডন প্রবাসী সারোয়ার আহমেদকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে তিন দিন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সংশ্লিষ্ট আদালতে আবেদন করেন। জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (চতুর্থ) আদালতের বিচারক এ বিষয়ে শুনানি করে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।
এক প্রশ্নের জবাবে এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, সুবিধামতো সময়ে আসামিকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। আসামি বর্তমানে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন। ওসি জানান, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মোখলেছুর রহমান সম্প্রতি পরিদর্শক (ওসি) পদে পদোন্নতি পেয়ে গত শনিবার অন্যত্র বদলি হয়ে গেছেন। এ অবস্থায় নতুন করে কোনো তদন্তকারী কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়নি। তাই বিষয়টি ওসি বর্তমানে নিজে দেখছেন।
উল্লেখ্য, বিয়ানীবাজারে ধর্ষণের শিকার ১২ বছরের এক শিশু কন্যাকে বিচার পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাসে আটকে রেখে তাঁর ওপর আবারও যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গত ২১ মে ভোর ৫টায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯-এর একটি দল বিয়ানীবাজার উপজেলার দেউলগ্রামে অভিযান চালিয়ে সারোয়ার আহমেদ (৩৫) নামের ওই লন্ডন প্রবাসীকে আটক করে। এসময় ওই বাড়ি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করে র‌্যাব।
গত ২২ মে নির্যাতনের শিকার শিশুটি লন্ডন প্রবাসীর হাতে ধর্ষণের লোহমর্ষক জবানবন্দি দেয়। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২২ ধারায় সিলেটের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে মেয়েটি জানায়, মাত্র ১৭ দিনে কয়েকবার তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে ।
চাঞ্চল্যকর এ ঘটনায় গত ২২ মে ধর্ষিতার পিতা বাদি হয়ে বিয়ানীবাজার থানায় প্রবাসী সারোয়ারকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

Open