থানা হাজতে যুবকের মৃত্যু: চার পুলিশ সদস্য সাসপেন্ড

সুরমা টাইমস ডেস্ক ::জৈন্তাপুর থানা হাজতের ভেতরে নজরুল ইসলাম বাবু নামের এক যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় চার পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত (সাসপেন্ড) করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার তাদের বরখাস্ত করা হয়।
বরখাস্তকৃত চার পুলিশ সদস্য হচ্ছেন- এসআই শফিকুর রহমান, এসএসআই জয়নাল আবেদিন, কনস্টেবল আক্কাস আলী ও কনস্টেবল নান্টু চাকমা।
তাদেরকে বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজ্ঞান চাকমা।
তিনি জানান, থানা হাজতে নজরুল ইসলামের মৃত্যুর ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে তাদেরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত ১৯ মে ভোররাতে জৈন্তাপুর থানা হাজতের ভেতরে নজরুল ইসলাম বাবু মারা যান। পুলিশ দাবি করে, বাবু আত্মহত্যা করেছেন। তবে বাবুর পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেন, বাবুকে নির্যাতনের মাধ্যমে হত্যা করা হয়েছে।
গত বছরের ১৬ নভেম্বর জৈন্তাপুরের ঘিলাতৈল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা নাসরিন ফাতেমাকে বিয়ে করেন নজরুল ইসলাম বাবু। বিয়ের পর তাদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। একপর্যায়ে নাসরিন ফাতেমা বাবার বাড়ি চলে যান এবং নির্যাতনের অভিযোগ এনে বাবুর বিরুদ্ধে মামলা করেন। ওই মামলায়ই ১৯ মে রাতে বাবুকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ।
বাবুর মৃত্যুর পর দায়িত্বে অবহলোর কারণে তাৎক্ষণিকভাবে ওই রাতে থানার ডিউটি অফিসার জৈন্তাপুর থানার এসআই জয়নাল আবেদিন ও হাজতের সামনে দায়িত্ব পালনকারী কনস্টেবল আখতার হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছিল।

Sharing is caring!

Loading...
Open