জাফলংয়ে মালনিয়াং রাজাবাড়ি দখল চেষ্টার অভিযোগ

গোয়াইনঘাট উপজেলার জাফলং বল্লাপুঞ্জি এলাকায় চৈলাখেল ২য় খন্ড এলাকায় অবস্থিত খাসিয়া নৃগোষ্ঠীর ঐতিহ্যবাহী মালনিয়াং রাজ্যের অন্তত ৫শত বছর পুরানো রাজবাড়ি চা-শ্রমিক দিয়ে দখল করতে একটি প্রভাবশীল বিভিন্নভাবে চেষ্টা করছে বলে স্থানীয় খাসিয়া নৃজনগোষ্ঠীর লোকজন অভিযোগ করেছেন।
এনিয়ে হিন্দু ও খাসিয়া নৃগোষ্ঠীর মধ্যে কিছুটা উত্তোজনা দেখা দিয়েছে। এবিষয়ে পুঞ্জির হেডম্যান দেলোয়ার লামিন ভূমি রক্ষা ও নিজের নিরাপত্তা চেয়ে গোয়াইনঘাট থানায় লিখিত একটি অভিযোগ দিয়েছেন।
গত ১৪ মে জাফলং মামার বাজার পাথর টিলা এলাকার বাসিন্দা অনিল সিং, সুনিল সিং, অরুন সিং ও লব গোয়ালা সিংহের নেত্বত্বে ৩০/৪০জনের চা-শ্রমিক জনগোষ্ঠীর লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে জোর পূর্বক মালনিয়াং রাজ্যের রাজবাড়ির জায়গা দখল করার চেষ্টা চালান। এ সময় তাঁরা বেশ কিছু পানি সুপারি গাছ কর্তন করে নিরীহ খাসিয়া সম্প্রদায়ের লোকজনকে হুমকি দেন এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির বলে দাবি করেন। সরজমিনে পরিদর্শন কালে পান সুপারির গাছ কর্তন করার চিত্র দেখা গেছে।
স্থানীয় পুঞ্জির সাবেক হেডম্যান বীরেন খাসিয়া জানান, আমাদের খাসিয়া সম্প্রদায়ের প্রাচীন মালনিয়াং রাজ্যের রাজবাড়ি দখল করতে চেষ্টা করা হচ্ছে। অতীতে কোনো দিন চা-শ্রমিক সম্প্রদায়ের লোকজন হিন্দু মন্দির বলে দাবি করেননি। সম্প্রতি বিভিন্নভাবে আমাদের নিরীহ মানুষকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে জায়গা থেকে আমাদেরকে উচ্ছেদ করার ষড়যন্ত্র করছেন কিছু পাথর ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ। রাজবাড়ির চারিদিকে খাসিয়াদের নিজস্ব মালিকানাধীন জায়গা রয়েছে।
এ ঘটনা নিয়ে স্থানীয় চা-জনগোষ্ঠীর নেতৃবৃন্দের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাদের পাওয়া যায়নি। তবে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন মন্দির বলে দাবি করলেও বাস্তবে এই রাজবাড়ি একটি ঐতিহাসিক নির্দশন। একটি সূত্র জানিয়েছে, ভূমি জরিপে ভুলবশত মন্দির হিসাবে রেকর্ড হওয়ায় তাঁরা এই দাবি করছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open