সারা দেশে জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে কেন্দ্রে কেন্দ্রে গণনা

দেশে প্রথমবারের মতো জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষে কেন্দ্রে কেন্দ্রে শুরু হয়েছে গণনা। পার্বত‌্য তিন জেলা বাদে দেশের বাকি ৬১ জেলায় ওয়ার্ডভিত্তিক ভোট কেন্দ্রে সকাল ৯টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলে।

এ নির্বাচনে ভোটার ছিলেন কেবল ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ, পৌরসভা, সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা। তাদের ভোটেই প্রতিটি জেলায় একজন করে চেয়ারম্যান এবং ২০ জন সদস্য নির্বাচিত হবেন।

ভোটের আগের দিন আদালতের আদেশে বগুড়া জেলার চেয়ারম‌্যান পদসহ ২১ জেলার ৩৪টি ওয়ার্ডের ভোট স্থগিত করা হয়েছিল। বুধবার সকালে ভোট শুরুর আগে মাদারীপুরের একটি কেন্দ্রে মারামারি এবং ময়মনসিংহে প্রকাশ্যে ভোট দেওয়ার অভিযোগ এনে দুই সদস্য পদপ্রার্থী বর্জনের ঘটনা ছাড়া সারা দেশে ভোট শেষ হয় শান্তিপূর্ণভাবে।

বেলা ১২টায় ঢাকার আগারগাঁও তালতলা সরকারি কলোনি উচ্চ বিদ্যালয় এবং পরে আজিমপুর গার্লস স্কুল কেন্দ্র ঘুরে দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ।

তালতলা সরকারি কলোনি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মো. মঈনুল হোসেন জানান, বেলা ২টায় তারা ভোট শেষ করে গণনার প্রস্তুতি শুরু করেছেন। ওই কেন্দ্রের ৩২ জন ভোটারের মধ্যে ২৮ জন সদস‌্য পদে ভোট দিয়েছেন। ঢাকার চেয়ারম‌্যান পদের একমাত্র প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

বিএনপি ও জাতীয় পার্টিসহ অধিকাংশ দল এ নির্বাচন বর্জন করায় ঢাকাসহ ২১ জেলায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে গেছেন ভোটের আগেই। বাকি অধিকাংশ জেলায় আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীদের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতারাই।

সব মিলিয়ে ভোটার সংখ্যা ৬৩ হাজারের কিছু বেশি হলেও এ নির্বাচন আয়োজনে ইসির খরচ ধরা হয়েছে সোয়া পাঁচ কোটি টাকা। সাধারণ জনগণের সরাসরি অংশগ্রহণ নেই বলে বুধবার নির্বাচনী এলাকায় সাধারণ ছুটি নেই। তবে ভোটকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত স্থাপনাগুলোর সব কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open