প্রধান শিক্ষকগণের প্রস্তাবিত ১০ দফা সুপারিশমালা বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি

photo-17-11-161চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি ॥ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগনের বেতন নির্ধারনে ঐচ্ছিক সৃষ্ট জটিলতা নিরসন সহ বিশ্বমানের প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করণে প্রস্তাবিত ১০ দফা সুপারিশমালা বাস্তবায়নের দাবিতে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটি কর্তৃক ঘোষিত জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে  প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে হবিগনজ জেলা শাখা। জেলা সভাপতি হাসিনা বেগমের নেতৃত্বে ও জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক ফখর উদ্দিন এর পরিচালনায় এবং জয়েন্ট সেক্রেটারি মোঃ জালাল উদ্দিন এর নির্দেশনায় বিভিন্ন উপজেলার শিক্ষক প্রতিনিধিগনের উপস্থিতিতে গত ১৭ নভেম্বর এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। এর পূর্বে জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বরে আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়। এতে প্রধান শিক্ষকগনের পক্ষে বক্তব্য রাখেন মোঃ মতিউর রহমান, জেসমিন আক্তার, আলেয়া খাতুন, মোঃ ফখরুল ইসলাম (বদরুল), শাহেনা বেগম, আছমা আক্তার বানু, আঃ হান্নান এবং সহকারী শিকগণের পক্ষে বক্তব্য রাখেন সোলেমান মিয়া, হারুনুর রশীদ প্রমুখ। বক্তাগন বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে অত্যন্ত আন্তরিক। বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির ধারাবাহিক ও নিয়মতান্ত্রিক দাবি এবং আন্দোলনের ফলে তিনি বিগত ০৯/০৩/২০১৪ইং প্রধান শিক্ষক পদটিকে ২য় শ্রেণির পদমর্যাদা ও সহকারী শিক্ষক পদের বেতনস্কেল একধাপ উন্নীত ঘোষনা করেন। কিন্তু এক শ্রেণির মীরজাফরদের ষড়যন্ত্রের কারণে প্রধান শিক্ষকগন সেই ঘোষনার কোন আর্থিক সুবিধাই আজো পাননি। উপরোন্ত সিনিয়রগন হয়েছেন জুনিয়র আর জুনিয়রগন হয়েছেন সিনিয়র। বিগত প্রায় ৩ বছর যাবত সীমাহীন হতাসায় সময় কাটছে শিক্ষকগনের। শিক্ষাতে যার নেতিবাচক প্রভাব সুস্পষ্টই প্রতিয়মান হচ্ছে। এরূপ পরিস্থিতিতে প্রধান শিক্ষকগনের ফিক্সেশন জটিলতা নিরসন সহ বিশ্বমানের প্রাথমিক শিা নিশ্চিত করণে অত্র সংগঠন কর্তৃক প্রস্তাবিত ১০ দফা সুপারিশমালা বাস্তবায়নে শিাবান্ধব মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জরুরী হস্তপে কামনা করেন বক্তাগন।

Sharing is caring!

Loading...
Open