বিশ্বম্ভরপুরে বারকি শ্রমিক সংঘের সভা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

dsc07656আব্দুল আজিজ :: দীর্ঘ প্রায় দেড় মাস যাবত কর্মহীন হয়ে পড়ায় বিশ্বপুর উপজেলার জিনারপুর বাজারে কয়েক শত বারকি শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছে। ১৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যার সময় সুনামগঞ্জ জেলা বারকি শ্রমিক সংঘ রেজিঃ নং চট্টঃ ২৩৫৫-এর উদ্যোগে বারকি শ্রমিকরা জিনারপুর বাজারে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। এর আগে বিকেলে জিনারপুর বাজারে বারকি শ্রমিক সংঘের জেলা সভাপতি নাছির মিয়ার সভাপতিত্বে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বারকি শ্রমিক সংঘের সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ অদুদ মিয়া পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রজত বিশ্বাস ও সুনামগঞ্জ জেলা সভাপিত বাদল সরকার। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বারকি শ্রমিক সংঘের সহ-সভাপতি প্রবীণ বারকি শ্রমিকনেতা আব্দুর রহমান ও নজরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মন্নান, কোষাধ্যক্ষ মোঃ কাদির মিয়া, প্রচার সম্পাদক নজরুল ইসলাম নজু, দপ্তর সম্পাদক রইছ মিয়া, সদস্য আবুল বাশার, গোলজার হোসেন, রতন মিয়া, আইনাল হক, রহিম মিয়া, রমজান আলী প্রমূখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন আবহমানকাল থেকে ধোপাজন চলতি নদী সংলগ্ন কয়েক হাজার শ্রমিক নদী থেকে হাতের সাহায্যে প্রাকৃতিভাবে বালু পাথর উত্তোলন করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। কিন্তু বিগত ৫/৬ বছর যাবত নদী থেকে অবাধে বোমা মেশিন ও ড্রেজারের মাধ্যমে বালু পাথরর উত্তোলনের কারণে নদীর গভীরতা মাত্রাতিরিক্ত বেড়ে যাওয়ায় সাধারণ শ্রমিকদের পক্ষে হাতে সাহায্যে বালু পাথর উত্তোলন করা অসম্ভব হয়ে পড়ে। বাধ্য হয়ে বিজিবি ক্যাম্পের কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বজায় রেখে শ্রমিকরা অপেক্ষাকৃত কম গভীর ডলুরা সীমান্ত থেকে বালু পাথর উত্তোলন করে জীবিকা নির্বাহের চেষ্টা করে আসছেন। কিন্তু গত প্রায় দেড় মাস যাবত ডলুরা ক্যাম্পের বিজিবি কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের সীমান্তের কাছাকাছি ঘেঁষতে দিচ্ছেন না। যার কারণে হাজার হাজার শ্রমিক কর্মহীন হয়ে অনাহার-অর্ধাহারে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। সমাবেশ থেকে আইনশৃঙ্খলা বজায় রেখে সীমান্ত এলাকা থেকে শ্রমিকদের হাতের সাহায্যে বালু পাথর উত্তোলন করার সুযোগ প্রদান করার জন্য প্রশাসন ও বিজিবি কর্তৃপক্ষের নিকট আহবান জানানো হয়। একই সাথে আগামী ২০ নভেম্বর জেলা প্রশাসক ও ২৮ ব্যাটেলিয়ান, বর্ডার গার্ড, সুনামগঞ্জের অধিনায়ক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open