নগরীতে আ. লীগের দুই গ্রুপে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, গাড়ি ভাংচুর

1নিজস্ব প্রতিবেদক :: নগরীর শাহী ঈদগাহ এলাকায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে ধাওয়া- পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় বেশ কয়েকটি গাড়িও ভাংচুর করা হয়। শনিবার রাত পৌনে আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে গাড়ি ভাংচুরের প্রতিবাদে শাহী ঈদগায় প্রায় একঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে পরিবহন শ্রমিকরা। পরে প্রশাসনের আশ্বাসে রাত নয়টার দিকে অবরোধ প্রত্যাহার করে তারা। ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আমিনুর রহমান পাপ্পু অভিযোগ করেন, শনিবার রাত পৌনে আটটার দিকে জয় বাংলা শ্লোগান দিয়ে কে বা কারা ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হামলা চালায়। এসময় কার্যালয়ের আসবাবপত্র ভাংচুর করে। পরে শাহী ঈদগাহ এলাকার আওয়ামী লীগ-ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা জড়ো হয়ে হামলাকারীদের ধাওয়া করেন। তবে এরা টিলাগড় ছাত্রলীগ নেতা সায়েফ আহমদের গ্রুপের কর্মী। এসময় ৪টি মিনি ট্রাক, একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও একটি দোকান ভাংচুর করা হয় বলে জানান স্থানীয়রা। এদিকে গাড়ি ভাংচুরের প্রতিবাদে রাত ৮টা থেকে শাহী ঈদগাহ সড়ক অবরোধ করে পরিবহন শ্রমিকরা। এতে ব্যস্ত এই সড়কে বন্ধ হয়ে পড়ে যানচলাচল। রাত ৯ টায় পুলিশের আশ্বাসে তারা অবরোধ প্রত্যাহার করে নেন।
এ ব্যাপারে সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সহ -সভাপতি সয়েফ আহমদ জানান, আমি ও আমার কর্মীরা মেয়র কামরানের কেন্দ্রীয় সদস্য পদ পাওয়ায়  ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় পরবর্তী আনন্দ মিছিলে টিলাগড়ে ছিলাম। এতে আমি ও আমার কোন কর্মী জড়িত ছিলনা।
জেলা ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি দিলু মিয়া জানান, তাদের আভ্যন্তরীণ বিরোধে আমাদের বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে। তিপূরণ না দিলে আমরা আরো কঠোর কর্মসূচী দেবো। এ ব্যাপারে নগরীর বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন বলেন, এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। কেউ অভিযোগ দিলে পুলিশ ব্যবস্থা নেবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open