সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে স্বামীর লিঙ্গ ছিড়ে ফেলল স্ত্রী

2সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে স্ত্রী কর্তৃক স্বামীর লিঙ্গ ছিড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটে গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টায় উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নের তালেরতল গ্রামে মইন উদ্দিনের বাড়ীতে। স্থানীয় একাধিক সুত্রে জানা যায়, তালেরতল গ্রামের আব্দুল খালেকের পুত্র মঈন উদ্দিন (৩৫) এর সাথে ফতেহপুর ইউনিয়নের ফুলবরি গ্রামের আব্দুল কদ্দুছের মেয়ে স্বপ্না বেগম(৩০) এর ১৭ বছর পূর্বে বিয়ে হয়। বর্তমানে মইন উদ্দিন শারীরিক দুর্বলতার সুযোগ একই গ্রামের সুলাল আহমেদের পুত্র যুবক শাহজাহানের সাথে পরকিয়া গড়ে তুলেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে ৩  সন্তানের জননী স্বপ্না বেগম শাহজাহান মিয়ার বাড়ীতে চলে যায়। এ নিয়ে স্বপ্না বেগমের আত্মীয় স্বজন ও মইন উদ্দিনের আত্মীয়স্বজনরা বিচার শালিসের মাধ্যমে স্ত্রী স্বপ্না বেগমকে স্বামী মইন উদ্দিনের বাড়ীতে শুক্রবার রাতেই ফিরিয়ে দেয়া হয় এবং আত্মীয় স্বজনের কথায় রাজি হয়েই স্বামীর ঘরে ফিরে আসেন স্ত্রী স্বপ্না বেগম। ইফতারের পর স্বামী ঘুমিয়ে পড়লে রাত সাড়ে ৯টায় শোর চিৎকারে আশপাশের লোকজন ভীড় জমায় এবং স্বামীর লিঙ্গ ছিড়ে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পায়। রোগীর অবস্থা আশংখাজনক দেখে স্থানীয়দের সহায়তায় দ্রুত সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। কর্তব্যরত ডাক্তার রোগীর অবস্থা আশংখাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বর্তমানে হাসপাতালের তিন তলার ১১ নম্বর ওয়ার্ডে এক্সট্রা বেডে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।
এ ব্যাপারে বিশ্বম্ভরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো: শহিদুল ইসলাম বলেন, তালতলা গ্রামে একটি ঘটনা ঘটেছে শুনেছি কিন্তু এখন পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ নিয়ে আসেনি। অভিযোগ পাওয়া গেলে যথাযত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open