যুক্তরাষ্ট্র-চীন সম্পর্কের উত্তেজনা বাড়ছে

zzzআন্তর্জাতিক ডেস্ক : মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি আজ রবিবার বিরোধপূর্ণ দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের এয়ার ডিফেন্স আইডেন্টিফিকেশন জোন (এডিআইজেড) স্থাপনের বিরুদ্ধে কড়া হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ‘উসকানির’কড়া সমালোচনা করে চীন বলেছে, দক্ষিণ চীন সাগরের বিরোধপূর্ণ এলাকা নিয়ে কোন ধরনের ‘উত্তেজনাকে’তারা ভয় করে না।
মঙ্গোলিয়া সফরকালে দেশটির রাজধানী উলান বাটোরে সাংবাদিক সম্মেলনে কেরি বলেন, বিরোধপূর্ণ অঞ্চলে চীনের এই সামরিক স্থাপনা নির্মাণকে ‘উসকানিমূলক ও অস্থিতিশীলতা সৃষ্টিকারী আচরণ’হিসেবে বিবেচনা করবে যুক্তরাষ্ট্র।
অপরদিকে সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত এক নিরাপত্তা সম্মেলনে চীনের অ্যাডমিরাল সান জিয়াংগুয়ো বলেন, ‘এই বিষয়ে বাইরের দেশগুলোর গঠনমূলক ভূমিকা নেয়া উচিত। তাদের অন্য কোন ভূমিকা রাখা উচিত না। নির্দিষ্ট কিছু দেশ তাদের হীন স্বার্থে এই অঞ্চলে উসকানিমূলক তৎপরতা চালাচ্ছে। এ কারণে দক্ষিণ চীন সাগর ইস্যুটি চরম উত্তেজনাকর বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।’
দক্ষিণ চীন সাগরের একটি কৃত্রিম দ্বীপে চীনের সামরিক স্থাপনা নির্মাণ যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশকে ‘পদক্ষেপ গ্রহণে’ প্ররোচিত করবে বলে মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যাশটন কার্টার সতর্ক করার একদিন পর সান এই মন্তব্যটি করলেন। চীনের অ্যাডমিরাল আরো বলেন, ‘আমরা উত্তেজনা সৃষ্টি করি না। তবে আমরা একে ভয়ও পাই না।’
উল্লেখ্য ফিলিপাইন ওই দ্বীপটির মালিকানা দাবি করে আসছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open