বিছনাকান্দি পর্যটন কেন্দ্র : বন্দোবস্তের নামে দখলের পায়তারা, উত্তেজনা

guwainghat-news-1-700x348ডেস্ক রিপোর্টঃ দেশের অন্যতম দৃষ্টিনন্দন পর্যটন কেন্দ্র বিছনাকান্দি। প্রতিদিনই হাজারো পর্যটকের পদচারনায় মুখরিত হয়ে থাকে ওই এলাকা। বিছনাকান্দি পর্যটন কেন্দ্রের মূল স্পটের পাশেই ৮৭ একর জায়গা জুড়ে গো-চারণ ভূমি।
জায়গাটি এলাকার বেশ কয়েকটি গ্রামের গোবাদি পশু চড়ানোসহ স্থানীয় শিশু-কিশোরদের খেলাধূলা ও বিনোদনের একমাত্র স্থান। এছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা পর্যটকদের যাতায়াতের একমাত্র স্থলপথ হিসেবে ওই গোচারন ভূমিটি ব্যবহৃত হচ্ছে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে ওই এলাকার একটি পাথরখেকো চক্র গোচরণ ভূমির প্রায় ১.৫০ একর জায়গা বন্দোবস্তের নামে দখলের পায়তারা করছে। এ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।
সরেজমিন এই এলাকা পরিদর্শনকালে বিছনাকান্দি এলাকার প্রবীণ মুরব্বী হাজী সিরাজ উদ্দিন, হাজী ইমদাদুর রহমান, হাজী আতাউর রহমান, হাজী মুহিবুর রহমান, মোঃ আব্দুন নূর, জয়নাল আবেদীন, বুরহান উদ্দিনসহ প্রায় অর্ধ শতাধিক ব্যক্তি জানান, ১৯৪৭ সালে দেশ বিভক্তির পর থেকে অদ্যবধি পর্যন্ত বিছনাকান্দি মৌজার ১নং খতিয়ানের সাবেক ৩৯ নং দাগের প্রায় ৮৭ একর জায়গা গোচারণ ভূমি হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। কিছুদিন আগে স্থানীয় কুনকিরি গ্রামের আতিকুর রহমান গোচারণ ভূমির পার্শ্ববর্তী বগাইয়া মৌজায় খাস খতিয়ানের ১.৫০ একর ভূমি পাথর উত্তোলনের জন্য বন্দোবস্ত নেন। কিন্তু বগাইয়া মৌজা রেখে তিনি বিছনাকান্দি মৌজার গোচারণ ভূমিতে পাথর উত্তোলনের চেষ্টা করেন।
এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিলে আতিক গত শনিবার সকালে গোচারণ ভূমিতে জরিপ কার্যক্রম চালানোর উদ্যোগ নেন। এ খবর পেয়ে এলাকাবাসীও গোচারণ ভূমি রক্ষার জন্য সমবেত হন।
এ ব্যাপারে বন্দোবস্ত গ্রহীতা আতিকুর রহমানের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাঁর ব্যবহৃত ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।
এ ব্যাপারে গোয়াইনঘাটর সহকারী কমিশনার (ভূমি) আশ্রাফ আহমেদ রাসেল জানান কিছুদিন পূর্বে আতিকুর রহমানের পক্ষে কয়েকজন লোক জায়গাটি জরিপ করে পৃথক করার জন্য আমার কার্যালয়ে এসেছিল। আমি তাদেরকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে আসার কথা বললে তারা কাগজপত্র নিয়ে আসে। কাগজপত্র পর্যালোচনা করে দেখা যায়, বন্দোবস্তীয় জায়গাটি সরকারি খতিয়ানে বিধায় সরকারি স্বার্থে জরিপ কার্যক্রম ব্যতিত ব্যক্তি স্বার্থে ঐ স্থানে জরিপ কার্যক্রম চালানো সম্ভব নয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open