অনলাইনে বেতন নির্ধারণ না করলে বেতন স্থগিত

salary_112516 নিউজ ডেস্ক :যেসব সরকারি চাকরিজীবী অনলাইনে নতুন স্কেলে বেতন নির্ধারণ করেননি তাদেরকে ২০ জুলাইয়ের মধ্যে বাধ্যতামূলক তা সম্পন্ন করতে হবে। না হলে চলতি বছরের জুলাই থেকে তাদের বেতন সামিয়ক স্থগিত থাকবে বলে জানিয়েছে অর্থমন্ত্রণালয়।

সরকারি চাকরিজীবীদের অনলাইনের মাধ্যমে নতুন কাঠামোতে বেতন (পে ফিক্সেশন) ও পেনশন নির্ধারণ বাধ্যতামূলক করতে মঙ্গলবার পরিপত্র জারি করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

এতে বলা হয়েছে, আগামী ২০ জুলাইয়ের মধ্যে সব সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অনলাইনে বেতন নির্ধারণ সম্পন্ন করতে হবে। অনলাইনে বেতন নির্ধারণ না করলে জুলাই মাসের বেতন স্থগিত হয়ে যাবে।

সরকারের আর্থিক ব্যবস্থাপনা আধুনিকায়নে একটি সফটওয়ার চালু করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়। যার মাধ্যমে চাকরির তথ্য দিয়ে নিজেদের বেতন-ভাতা বের করতে পারবেন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে আইবাস প্লাস প্লাস (iBAS++) নামের এই সফটওয়ার উদ্বোধন করেন।

আইবাস প্লাস প্লাস হচ্ছে একটি কেন্দ্রীভূত সমন্বিত বাজেট প্রণয়ন, বাস্তবায়ন ও হিসাবরক্ষণ পদ্ধতির সফটওয়ার। এতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন ও অবসর ভাতা (পেনশন) নির্ধারণের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

যে কেউ অনলাইনে www.payfixation.gov.bd ঠিকানায় গিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) নম্বর, কর্মরত পদ, চাকরিতে যোগদানের তারিখ, কতগুলো টাইম স্কেল, সিলেকশন গ্রেড পেয়েছেন তার তথ্য এবং সর্বশেষ স্কেলের তথ্য দিলেই নতুন স্কেলে তার বেতন কত দাঁড়াচ্ছে তা চলে আসবে। একইভাবে মিলবে অবসর ভাতার তথ্য। স্বয়ংক্রিয়ভাবে ওই কর্মকর্তা-কর্মচারী বেতন-ভাতা নির্ধারিত হয়ে যাবে এর মাধ্যমে।

অনলাইনে তথ্য দেওয়ার পর তার বেতন কত নির্ধারিত হয়েছে তা এসএমএসের মাধ্যমে সাথে সাথেই জানানো হবে। একইসঙ্গে তিনি একটি ট্রাকিং নম্বর এবং চাকরির অবস্থানপত্র (বেতন নির্ধারণের সময় পর্যন্ত) পাবেন। এই অবস্থানপত্রের দুটো কপি প্রিন্ট দিয়ে স্বাক্ষর করে যার যার সংশ্লিষ্ট হিসাবরক্ষণ অফিসে পাঠাতে হবে।

তবে পেনশনারদের নিজেদের অনলাইনে তথ্য দিতে হবে না। পেনশনভোগী ব্যক্তি যে ব্যাংক বা হিসাবরক্ষণ অফিস থেকে পেনশন তোলেন সেখানে এনআইডির ফটোকপি ও পিপিও বইয়ের ফটোকপি জমা দিলে তারাই এসব তথ্য অনলাইনে দিবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open