দিনাজপুরে পুলিশের ওয়্যারলেস অপারেটারের বিরুদ্ধে কিশোরীকে নির্যাতনের অভিযোগ

1মোঃ আরিফ জাওয়াদ, দিনাজপুর:- বিয়ে করতে অসম্মতি প্রকাশ করায়, তামান্না আক্তার (১৬) নামে এক কিশোরীকে শারিরিক নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে দিনাজপুর কোতয়ালী থানার ওয়্যারলেস অপারেটার মোস্তফা কামালের বিরুদ্ধে। তামান্না আক্তার (১৬) দিনাজপুর শহরের পাটুয়াপাড়া এলাকার জাহিদুল ইসলামের কন্যা।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তামান্না জানান, প্রায় এক বছর ধরে মোস্তফা কামাল বিভিন্ন সময়ে প্রেম প্রস্তাব করে বিরক্ত করত। ২৬শে এপ্রিল (মঙ্গলবার) বিকেলে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় ইয়াবা দিয়ে হাজতে নেয়ার হুমকি দিয়ে রাস্তা থেকে জোরপুর্বক মটর সাইকেলে তুলে নিয়ে শহরের ফকিরপাড়া এলাকার একটি ফাঁকা বাড়িতে নিয়ে তাকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়। তামান্না বিয়ে করতে অসম্মতি জানালে মোস্তফা লাঠি দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারপিট করে, করে জানায় ঐ কিশোরী।

কিশোরী তামান্নার পরিবার সূত্রে জানা যায়, কিশোরীর পিতা জাহিদুল ইসলাম অভিযুক্ত ওয়্যারলেস অপারেটার মোস্তফার
বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছেন। পুলিশ ওয়্যারলেস অপারেটার মোস্তফার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা না নিয়ে পুলিশ নির্যাতিতার পিতাসহ পরিবারের সদস্যদের নিয়ে সমঝোতা চেষ্টা করছে। তবে ২৭শে এপ্রিল (বুধবার) বেলা ২টা পর্যন্ত তাদের অভিযোগ নথিভুক্ত করা হয়নি, বলে জানা যায়।

এ দিকে তামান্নার পিতা জহিদুল ইসলাম ও খালু মোঃ আউয়াল অভিযোগ করেছেন ঘটনার পর থেকেই মামলা না নিয়ে থানার ওসিসহ পুলিশ কর্মকর্তারা মোস্তফার সাথেই বিয়ে দেয়ার জন্য প্রস্তাব দিয়ে সমঝোতার করতে চাপ দিচ্ছে।

এ দিকে লিখিত অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন, দিনাজপুর-কোতয়ালী ওসি খালেকুজ্জামান। তিনি আরো জানান, মেয়ের পক্ষ থেকেই বিয়ে নিয়ে উভয় পরিবারের মধ্যে আলোচনা চলছে। আলোচনা ব্যর্থ হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open