বিয়েতে রাজি না হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে পুলিশের নির্যাতন

downloadডেস্ক রিপোর্টঃ বিয়েতে রাজি না হওয়ায় দিনাজপুরের এক স্কুলছাত্রীকে আটকে রেখে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে একজন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে। গতকাল মঙ্গলবার শহরের ছয় রাস্তার মোড় থেকে ওই ছাত্রীকে ফকিরপাড়া এলাকায় তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানা গেছে।
অভিযোগ ওঠা ওই পুলিশ সদস্যের নাম মোস্তফা। তিনি কোতোয়ালি থানায় কনস্টেবল হিসেবে দায়িত্বরত।
নির্যাতিত ছাত্রীর বড় বোন জানান, পাটুয়াপাড়া ওয়াজিফা সামাদ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে তাঁর বোন। কনস্টেবল মোস্তফা দীর্ঘ এক বছর ধরে তাঁর ছোট বোনকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ ব্যাপারে মোস্তফাকে নিষেধ করা হলে সে উল্টো তার পরিবারের সদস্যদের বিভিন্ন মামলায় জড়িয়ে দেয় এবং তার পরিবারের সদস্যদের চামড়া ছিলে নেওয়ার হুমকি দেয় বলে অভিযোগ করেন তিনি।
এরই এক পর্যায়ে গতকাল ছয় রাস্তার মোড় থেকে ওই ছাত্রীকে জোর করে ফকিরপাড়া এলাকায় তুলে নিয়ে যায় মোস্তফা। সেখানে বিয়েতে রাজি না হওয়ায় ওই ছাত্রীর ওপর দুই দফায় নির্যাতন চালানো হয়। ওই ছাত্রী জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তাকে রামনগর নিজ বাসার সামনে ফেলে রেখে যায় মোস্তফা। পরে ওই ছাত্রীর পরিবারের সদস্যরা তাকে চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।
এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খালেকুজ্জামান জানান, তিনি বিষয়টি সম্পর্কে শুনেছেন। কনস্টেবল মোস্তফার বিরুদ্ধে আইগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

Sharing is caring!

Loading...
Open