বিয়ানীবাজারে নৌকার মাঝি নির্ধারণে তৃণমূলে ভোটাভোটি

20567ডেস্ক রিপোর্টঃ বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্ধারণে রোববার(২৪ এপ্রিল) তৃণমূলের ভোট গ্রহণ হয়েছে। এতে প্রত্যেক ইউপি’র তৃণমূল আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ভোট দিয়ে ইউপি’র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী নির্বাচন করেন। সর্বোচ্চ ভোট পাওয়া প্রার্থীই নৌকার মাঝি হবেন- এমন আভাস দিয়েছেন দায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দ। ১ নং আলীনগর ইউনিয়নে একক প্রার্থী নজরুল ইসলাম, ২ নং চারখাই ইউনিয়নে একক প্রার্থী মাহমদ আলী হওয়ায় এ দুই ইউনিয়নে তৃণমূলের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়নি।
৩নং দুবাগ ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুস সালাম তৃণমূলের ১২ ভোট পেয়েছেন ও সাবেক চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন তৃণমূলের ৭ ভোট পেয়েছেন। ২০ ভোটের মধ্যে একজন ভোটার অনুপস্থিত ছিলেন। ৪ নং শেওলা ইউনিয়নে জহুর উদ্দিন ৮, সাবেক চেয়ারম্যান সামসুদ্দিন ৬ ও মাসুদ খান ৬ ভোট পেয়েছেন। ৫ নং কুড়ারবাজার ইউনিয়নের মাহমদ আলী ৭, তুতিউর হমান তুতা ৬, খালেদ আহমদ ৬ ও আবদুল মোমিত ১ ভোট পান। ৭ নং মাথিউরা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সিহাব উদ্দিন ১৫ ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক বেলাল আহমদ ৫ ভোট পান। ৮ নং তিলপাড়া ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান এমাদ উদ্দিন ৯, সাবেক মেম্বার ইসলাম উদ্দিন ৬, ছালেহ উদ্দিন ৩ ও আবদুল লতিফ ২ ভোট পান। ৯ নং মোল্লাপুর ইউনিয়নে উপজেলা ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম ১২, শামীম আহমদ ৫ ও এম এ কাদির ৩ ভোট পান। ১০ নং মুড়িয়া ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সামসুদ্দিন মাখন ৬, আওয়ামী লীগ নেতা হুমায়ুন কবির ৫, সাব উদ্দিন ৪, শাব্বির উদ্দিন ৪ ও অহিদুর রেজা মাছুম ১ ভোট পান। ১১ নং লাউতা ইউনিয়নে তৃণমূলের ভোটার নিয়ে তালিকা না থাকায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়নি।
এ ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীলদের নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগ নৌকার মাঝি ঠিক করবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open