মৗলভীবাজারে হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

মহান মে দিবসে স্ববেতন ছুটি, শ্রমআইন বাস্তবায়ন ও ১০ হাজার টাকা মূল মজুরি ঘোষণার দাবি

Kobi (2)মহান মে দিবসে স্ববেতনে সর্বাতœক ছুটির দাবিতে মৌলভীবাজার জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং চট্টঃ২৩০৫ এর ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে ২০ এপ্রিল বিকেলে এক বিক্ষোভ মিছিল জেলা শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে চৌমূহনা চত্ত্বরে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং চট্টঃ২৩০৫ সভাপতি মোঃ মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট-এনডিএফ জেলা কমিটির সভাপতি কবি শহীদ সাগ্নিক ও বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রজত বিশ্বাস। এছাড়াও সমাবেশে বক্তব্য রাখেন হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপিত আব্দুল আজিজ প্রধান, সহ-সাধারণ সম্পাদক শাহিন মিয়া, কোষাধ্যক্ষ তারেশ বিশ্বাস সুমন, প্রচার সম্পাদক তাজুল ইসলাম ও রিকশা শ্রমিক সংঘের সভাপতি সোহেল আহমেদ প্রমূখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন রক্ত ঝরা সংগ্রামের মাধ্যমে শ্রমিক শ্রেণী বিশ্বব্যাপী ৮ ঘন্টা কর্মদিবসের দাবি প্রতিষ্ঠিত করলেও বাংলাদেশে হোটেল সেক্টরসহ ব্যক্তিমালিকানাধীন অধিকাংশ সেক্টরের শ্রমিকরা ৮ ঘন্টা কর্মদিবসের আইনগত অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছে। এমন কি মহান মে দিবস উপলক্ষে ১ মে সর্বস্তরের সরকারীÑবেসরকারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক-কর্মচারীরা ছুটি ভোগ করলেও হোটেল শ্রমিকদের এই সুযোগ থেকে বঞ্চিত করা হয়। দীর্ঘ আন্দোলনের সংগ্রামের মাধ্যমে মহান মে দিবসে ছুটি ও শ্রম আইন কার্যকর করার প্রেক্ষিতে গতবছর হোটেল মালিক সমিতির সাথে শ্রমিক ইউনিয়নের লিখিত চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এছাড়া গত ১৩ এপ্রিল শ্রীমঙ্গলস্থ কল-কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের উপ-মহাপরিদর্শক সকল হোটেল মালিককে চিঠি দিয়ে শ্রম আইনের ১১৮ ধারা অনুযায়ী শ্রমিকদের ছুটি প্রদানের আহবান জানান। মহান মে দিবস উদযাপন উপলক্ষে গত ১৯ এপ্রিল মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক আয়োজিত এক সভায়ও হোটেল শ্রমিকদের ছুটি প্রদানের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু হোটেল মালিক সমিতি শ্রমআইন কার্যকর না করে শ্রমিকদের ছুটি থেকে বঞ্চিত নানা রকম টালবাহনা করছে। সমাবেশে মহান মে দিবসে স্ববেতন সর্বাতœক ছুটি, হোটেল সেক্টরে নতুন মজুরি বোর্ড গঠন করে বর্তমান বাজারদরের সাথে সংগতিপূর্ণ ন্যূনতম মূল মজুরি ১০ হাজার টাকা ঘোষণা, ঢাকার ঘরোয়া হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টে কিশোর শ্রমিক রিয়াদের খুনিকে গ্রেফতার, হোটেল সেক্টরে শ্রম আইন কার্যকর ও শ্রীমঙ্গলে স্থায়ী শ্রম আদালত প্রতিষ্ঠার দাবি জানানো হয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open