জকিগঞ্জের আল্লামা শায়েখ আব্দুল গণী আর নেই

57412ডেস্ক রিপোর্টঃ সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জামেয়া মোহাম্মদিয়া হাড়িকান্দির মুহতামীম সিলেটের প্রখ্যাত আলেম আল্লামা শায়েখ মো. আব্দুল গণী আর নেই। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) বিকাল ৫ টায় সিলেট নগরীর পুর্ব জিন্দাবাজারস্থ সিলকো টাওয়ারে নিজস্ব ফ্লাটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন)।
তিনি দীর্ঘদিন থেকে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর। তিনি স্ত্রী, ১০ ছেলে, ৭ মেয়ে নাতি-নাতনিসহ আত্মীয়-স্বজন ও অসংখ্য গুণগ্রাহী ও দেশ-বিদেশে হাজার হাজার ছাত্র রয়েছে।
জানা যায়, আল্লামা শায়েখ আব্দুল গণী ১৯৪৩ সালের ১ মার্চ জকিগঞ্জ উপজেলার জামুরাইল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম মরহুম মো. ইনছান আলী। হাড়িকান্দি মাদ্রাসায় ভর্তি হওয়ার সময় তার নাম ছিল মো. তছির আলী। তাঁর শিক্ষাগুরু মাওলানা মুফতি আব্দুল গণী চৌধুরী তাকে স্নেহ করে আব্দুল গণী নাম দেন। অতঃপর ১৯৬১ সনে ইছামতি আলিয়া মাদ্রাসা হতে ১ম বিভাগে আলিম, জামেউল উলুম গাছবাড়ী মাদ্রাসা থেকে ১৯৬৩ সালে ফাজিল ও ১৯৬৫ সালে কামিল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। কর্মজীবনে তিনি গাছবাড়ি মাদ্রাসা, সুজাউল আলীয় মাদ্রাসা ও বিয়ানীবাজার সিনিয়র মাদ্রাসায় ১৮ বছর শিক্ষকতা করেন। দ্বীনি শিক্ষার প্রসারে তাঁর অসামান্য সাংগঠনিক দক্ষতার স্বীকৃতি হিসেবে এলাকাবাসী ছাত্র জীবনেই তাকে হাড়িকান্দি মাদ্রাসার মুহতামিম নিযুক্ত করেন। তার পৈতৃক ভূমিতে জামুরাইল মহিলা মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠাসহ সিলেট অঞ্চলে বহু মাদ্রাসা গড়ে উঠেছে। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দ্বীনি প্রতিষ্ঠান রক্ষা ও দ্বীন প্রচারের স্বার্থে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ ভ্রমণ করেছেন। সিলেট অঞ্চলের সর্ব মহলে তার ব্যাপক পরিচিতি রয়েছে। তার মৃত্যুর সংবাদে সিলেটের আলেম সমাজের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
আগামীকাল বাদ জোহর জকিগঞ্জের হাড়িকান্দি মাদ্রাসা মাঠে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে বলে তাঁর ছেলে হাফিজ মাওলানা সিদ্দিকুর রহমান জানিয়েছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open