বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ড উড়িয়ে দেয়ার হুমকী দিল উলফা

Bibiyanaসুলতান মাহমুদ, নবীগঞ্জ থেকে॥ এশিয়ার বৃহত্তম গ্যাস কূপ নবীগঞ্জের বিবিয়ানা ভারতীয় বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন উলফা কর্তৃক উড়িয়ে দেয়ার হুমকীর অভিযোগ উঠেছে। বুধবার সকাল থেকেই নবীগঞ্জবাসীর মধ্যে এ নিয়ে চলছিল নানা কানা ঘেষা। দৈনিক সমকাল পত্রিকায় প্রকাশিত খবরের সূত্র ধরে বিবিয়ানা এলাকায় চাউর হতে থাকে উলফা কর্তৃক বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ডে হামলা হচ্ছে। উপজেলা প্রশাসনও জানিয়েছেন এ নিয়ে শেভরন কর্তৃপক্ষ মৌখিকভাবে আতংকের কথা জানিয়েছেন। তবে শেভরনের কোন কর্মকর্তা বা কর্মচারী এ নিয়ে মুখ খোলতে রাজি নয়। আতংক নিয়ে প্রশাসনীক ততৎপরতা শোনা গেলেও বাস্তবে এর কোন প্রমাণ মিলেনি। গ্যাস ফিল্ড এলাকায় অতিরিক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থাও চোখে পড়েনি। প্রতি দিনের ন্যয় নিজস্ব নিরাপত্তা কর্মী দিয়েই চলছে তাদের কার্যক্রম।
গতকাল বুধবার বিকেলে সরেজমিন ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ডের দায়িত্বে থাকা শেভরন কর্তৃপক্ষ স্থানীয় প্রশাসনের কাছে থেকে নিরাপত্তা জন্য লিখিত না দিলেও মৌখিক নিরাপত্তা চেয়েছেন এমনটাই জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ। তিনি জানান, নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে তিনি বিবিয়ানার নিরাপত্তার বিষয়ে কথা বলেছেন। যদিও বিবিয়ানা কর্তৃপক্ষ কিংবা প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিক বা লিখিতভাবে কিছু জানাননি। তবে গ্যাসফিল্ডের যেকোন বিষয়েই তারা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে থাকেন।
গ্যাসক্ষেত্রের আশাপাশের এলাকায় স্বাভাবিক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। অন্যান্য দিনের মতোই কাজকর্ম চলছে। সেখানে অতিরিক্ত কোন পুলিশ মোতায়েন নেই। তবে বিবিয়ানার নিজস্ব নিরাপত্তা বাহিনী নিয়মিত টহল দিচ্ছে। আশপাশের রাস্তায় জনগণ ও যানবাহনের চলাচলও স্বাভাবিক রয়েছে। স্থানীয়রা জানান, সব সময় যে অবস্থায় বিবিয়ানা গ্যাসফিল্ড দেখেন তারা আজও (বুধবার) এমন অবস্থায়ই দেখছেন। এখানে বাড়তি কোন পুলিশ বা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কোন সদস্য তারা দেখেননি।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্য (ওসি) মোঃ আব্দুল বাতেন খানের সাথে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। হুমকির ব্যাপারে জানতে বিবিয়ানা কর্তৃপক্ষের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করে কোন সঠিক তথ্য পাওয়া যায়নি।

Sharing is caring!

Loading...
Open