নবীগঞ্জের কানাইপুর মাঠে ঐতিহ্যবাহী বারুনী মেলা অনুষ্টিত

উত্তম কুমার পাল হিমেল,নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ নবীগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বারুনীমেলা কানাইপুর মাঠে গতকাল মঙ্গলবার রাতে শেষ হয়েছে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও সনাতন র্ধমাবলম্বীদের মধুকৃষ্ণা এয়োদশী তিথিতে পূণ্যতীর্থ গঙ্গাস্নান উপলক্ষ্যে কানাইপুর মাঠে এ মেলা অনুষ্টিত হয়। এ মেলাতে জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে বিভিন্ন গ্রামের ও শহরের হাজার হাজার লোকের সমাবেশ ঘটে এ মেলায়। মেলায় আগমনকারী বিভিন্ন শ্রেনী পেশার দর্শনার্থীদের পদভারে মুখরিত হয়ে উঠে মেলা প্রাঙ্গন। শত শত বছরের ঐতিহ্যবাহী এ মেলায় ছোটদের খেলনা ও ষ্টেশনারী সামগ্রী,কাঠ ও বাশের তৈরী আসবাবপত্র প্রচুর পাওয়া যায়। মেলার প্রধান আকর্ষন বেল,তৈজষপত্র,তেতুল,বাশের লাটি ও মাটির তৈরী বিভিন্ন জিনিস উল্লেখযোগ্য। প্রতি বছরই মধুকৃষ্ণা এয়োদশী তিথিতে এ মেলা অনুষ্টিত হয়। অতিথে এ মেলাতে কোনরুপ জুয়ার আসর না দেখলেও গত ২/৩ বছর যাবত স্থানীয় ও আশপাশের গ্রামের কিছু জুয়ারীরা দিনভর প্রকাশ্যে জুয়ার আসর বসায়। খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল বাতেন খাঁনের নেতৃত্বে পুলিশ অভিযান চালায় । এ সময় উপস্থিত ছিলেন ,থানার সেকেন্ড অফিসার সুদীন চন্দ্র দাশ, এস আই নজরুল ইসলাম,নবীগঞ্জ প্রেসকাবের সাবেক সভাপতি প্যানেল মেয়র এটি এম সালাম, প্রেসকাবের সহ-সভাপতি ও উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারন সম্পাদক প্রভাষক উত্তম কুমার পাল হিমেলসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। পুলিশের ব্যাপক অভিযানে ও স্থানীয় লোকজন জুয়া খেলায় বাধা দিলে সাময়িকভাবে জুয়ারীরা পালিয়ে গেলেও পরবর্তীতে সন্ধ্যার পর প্রকাশ্যে জুয়ারীরা পুনরায় জুয়ার আসর বসায় । এছাড়া কানাইপুর বারুনী মেলা থেকে পৌর এলাকার একদল উশৃংখল যুবক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে চাদাঁ আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open