গোলাপগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১, আটক ৪

2গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি :: গোলাপগঞ্জের বাঘায় ভূমিসংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার রাতে দু’পক্ষের সংঘর্ষে বুদুর মিয়া (৫৫) নামের এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৫ জন। পুলিশ এ ঘটনায় ৪ জনকে আটক করেছে। ঘটনার পর সিলেট জেলার পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনাসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। লাশের ময়না তদন্ত শেষে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় নিহত বুদুর মিয়ার জানাজার নামাজ শেষে পারিবারিক গোরস্তানে তাকে দাফন করা হয়েছে।
গোলাপগঞ্জ উপজেলার বাঘা ইউনিয়নের উত্তর গোলাপনগর গ্রামে মৃত কুটু মিয়ার পুত্র বুদুর মিয়া (৫৫) ও তারই নিকটাত্মীয় মৃত সিকন্দর আলীর পুত্র লয়লু মিয়ার (৩৪)’র সঙ্গে ভূমি সংক্রান্ত বিষয়ে বিরোধ সৃষ্টি হলে তা নিরসনের লক্ষে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা রাতে ওই এলাকার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে এক সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে উভয়পক্ষ বিরোধীয় ভূমি নিজ নিজ পক্ষ দখলে রাখতে চাইলে বিষয়টি সালিশ বৈঠকে নিরসন করা সম্ভব হয়নি। একপর্যায়ে উভয় পক্ষ বিতর্কে জড়িয়ে বৈঠক ত্যাগ করেন। পরবর্তীতে বৈঠক থেকে উঠে ওই ভূমি উভয়ই দখল করতে চাইলে দু’পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়।
এতে প্রতিপক্ষের হামলায় বুদুর মিয়া গুরুতর জখম প্রাপ্ত হন। তার মাথায় গুরুতর আঘাত লাগলে তিনি ঘটনাস্থলেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে তাকে দ্রুত সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে মধ্যরাতে তিনি মারা যান।
এ সময় প্রতিপক্ষের লয়লু মিয়া চিকিৎসার জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হলে সেখানে পুলিশ তাকে আটক করে। বর্তমানে লয়লু মিয়া পুলিশী প্রহরায় চিকিৎসাধীন আছেন। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছেন বলে জানা যায়। পরবর্তীতে পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ওই এলাকার হাবিব আলীর পুত্র রুবেল আহমদ (২৭), জুনেদ আহমদ (২৬), আজমল আলীর পুত্র আহমদ হোসেনকে (২৫) আটক করে।
গতকাল সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিলো।

Sharing is caring!

Loading...
Open